সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

Bangla News bangladesh news Bengali News Bangla NewsPaper bangladesh newspaper Paper Bengali NewsPaper Bangla bengali newspaper Online Bangla News bangla news bd newspaper bangladesh newspapers bangla news paper bangladeshi newspaper news paper bangladesh daily newspapers of bangladesh current news bengali daily newspaper daily bangla newspaperdaily news bangladesh news dhaka news world news national news bangladesh media bangladesh sports bangladesh politics bangladesh business bangla khobor bangla potrika.

human-rights news Bangla News Bangladesh News Bengali News Bangla NewsPaper bangladesh Newspaper Paper, Bengali NewsPaper,bangla newspaper , Online Bangla News. bd all bangla newspaper, bangladesh newspaper bangla news paper bangladeshi newspaper news paper bangladesh, daily newspapers of bangladesh current news bengali bangladesh daily newspaper daily newspaper,daily news,dhaka news.

world news national news bangladesh bangla papermedia bangladesh sports bangladesh politics bangladesh business all bangla news bangla khobor,bangla potrika,human-rights news, bangla bangladesh prothom alo bangladesh newspaper bangla newspaper bangla news bdnews24 bangladesh news bd news bangla news paper bdnews24 bangla all bangla newspaper bd newspaper bangladeshi newspaper bangladesh newspapers bangladesh news paper banglanews bd news 24 anglanews24 bdnews bengali newspaper newspaper bangladesh all bangla news bangladesh daily newspaper daily bangla news paper bangla paper.

হামাসের সাইবার যোদ্ধারা: ইসরাইলিদের কাঁপুনি


অধিকৃত ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের সাইবার যোদ্ধারা মনস্তাত্ত্বিক উন্নত রণকৌশল গ্রহণ করে সাইবার জগতে ইহুদিবাদী ইসরাইলকে নাস্তানাবুদ করে তুলেছে। গাজায় ইহুদিবাদী আগ্রাসনের ভয়াবহতা বাড়ার পাশাপাশি ইসরাইলে সাইবার হামলার পরিমাণ পূর্বের তুলনায়  অন্তত ১০ গুণ বেড়েছে বলে ইহুদিবাদী সাইবার বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন। গত মাসের প্রথম সপ্তাহের পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে তেল আবিব বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইবার রিসার্চ সেন্টারের প্রধান আইজ্যাক বেন-ইসরাইল হিসাবে বলা হয়েছে, সাধারণত ইসরাইলের গুরুত্বপূর্ণ সাইটগুলোর বিরুদ্ধে  দৈনিক এক লাখ সাইবার হামলা হয়। কিন্তু গাজায় আগ্রাসনের পর থেকে গড়ে দৈনিক ১০ লাখ সাইবার হামলার শিকার হচ্ছে এ সব সাইট।

অবরুদ্ধ গাজা থেকে ইসরাইলি অবস্থানগুলোতে রকেট বৃষ্টি, ইসরাইলি আকাশ সীমায় ড্রোন হামলার পাশাপাশি সাইবার হামলা ও হ্যাকিংয়ের মধ্য দিয়ে ইহুদিবাদীদের জন্য মারাত্মক পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে হামাস। হামাসের সাইবার সেনারা একাধারের টুইটার, মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পাঠানো এসএমএস এবং উপগ্রহ সম্প্রচারের মাধ্যমে যে সব বার্তা প্রেরণ করছে তা ইহুদিবাদী ইসরাইলে গভীর আতংকের সৃষ্টি করছে। ইহুদিবাদীদের স্নায়ুর ওপর এ ভাবে মারাত্মক চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে এবং তাদেরকে দুঃস্বপ্ন, হতাশা ও মানসিক পীড়নের দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। ব্লুমবার্গ ডট কমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে পরোক্ষা ভাবে এ সব নিশ্চিত করেছেন ইহুদিবাদী ইসরাইলের ন্যাশনাল সাইবার ব্যুরোর প্রতিষ্ঠাতা এবং বর্তমানে তেল আবিব বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইবার রিসার্চ সেন্টারের প্রধান আইজ্যাক বেন-ইসরাইল।

তিনি জানান, হাইফার পেট্রোরাসায়নিক প্ল্যান্টে হামাসের কম্যান্ডোর হামলা করেছে এমন এক বার্তা পেয়েছেন তার মোবাইল ফোনে। আর এ বার্তা ইসরাইলি দৈনিক হারতেজ পাঠিয়েছে বলে দৃশ্যত মনে হচ্ছিল। কিন্তু অনুসন্ধানে উঠে আসে দৈনিকটি এ জাতীয় কোনো বার্তা পাঠায় নি বা এ জাতীয় খবর প্রকাশ করে নি। কিন্তু ততক্ষণে  যা ক্ষতি হওয়ার হয়ে গেছে। আতংক ছড়িয়ে পড়েছে ইসরাইলে। এ ছাড়া হামাসের পরবর্তী সাইবার হামলা এর চেয়ে মারাত্মক হবে তা অনুমান করতে কষ্ট হয় না বলে জানান তিনি।

গত মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে হামাসের সাইবার যোদ্ধারা ইহুদিবাদী ইসরাইলের জনপ্রিয় ডোনিনো’জ পিৎজ্জার ফেসবুক পাতা হ্যাক করে একটি বার্তা সেটে দেয়। এতে হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলা হয়, হামাস নিয়ন্ত্রিত গাজা উপত্যকায় হামাসের নিয়ন্ত্রণে আনুমানিক ১০ হাজার রকেট রয়েছে। এ সব রকেট বহরের এক পঞ্চমাংশ দিয়ে এক দিনে ইহুদিবাদী ইসরাইলের অবস্থানগুলোর ওপর একযোগে হামলা চালানো হবে। ইহুদিবাদীদের  অভ্যন্তরীণ গোয়েন্দা সংস্থা ‘শিন বেত’ তাদের নাম ব্যবহারে করে এ সংক্রান্ত ভুয়া টেক্সক্ট বার্তা ইসরাইলে প্রচারিত হয়েছে। কাল্পনিক রকেট হামলা এবং আহতদের বিবরণও দেয়া হয়েছে এতে।

হামাস এবং ইসলামি জ্বিহাদের সাইবার গেরিলারা দিনরাত তৎপর রয়েছেন। ইসরাইলি সাইবার কেন্দ্রের ওপর অব্যাহত হামলা করছেন তারা। এ ছাড়া বিশ্বের বিভিন্ন স্থানের সাইবার যোদ্ধাদের সঙ্গে সমন্বয় গড়ে তুলেছেন ভারচুয়াল জগতের গেরিলা যোদ্ধারা। ২০১২ সালে গাজায় ইসরাইলি আগ্রাসনের দিনগুলোতেও একই ভাবে সাইবার হামলা হয়েছে ইসরাইলে। আটদিনের এ যুদ্ধের সময়ে ইহুদিবাদী ইসরাইলের সরকারি সাইটগুলোতে হামলার জন্য বিশ্বব্যাপী ফিলিস্তিনি কম্পিউটার বিশেষজ্ঞদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল হামাস। সে সময়ে ইসরাইলি গুরুত্বপূর্ণ সাইটগুলোর বিরুদ্ধে চার কোটি ৪০ লাখ সাইবার হামলা হয়েছিল। ইসরাইলি কম্পিউটার বিশেষজ্ঞরা সে সময়ে নাজেহালের চূড়ান্ত অবস্থায় পৌঁছে গিয়েছিলেন।

অবশ্য ইসরাইল সে সময়ে যে সব কম্পিউটার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তুলেছিল তার কোনো কোনোটি এবারের হামাসের হামলায় নস্যাৎ হয়ে গেছে। কিংবা এ গুলোর বিরুদ্ধে হামাসের সাইবার যোদ্ধাদের শাণিত আক্রমণ অব্যাহত রয়েছে।

গত মাসের ৩ তারিখে ইসরাইলি সেনা মুখপাত্রের টুইটার পেইজ দখল করে নেয় হামাস যোদ্ধারা। তারা এ থেকে বার্তা ছড়িয়ে দেয় যে হামাসের রকেট দিমোনা পরমাণু চুল্লিতে আঘাতের পর সেখান থেকে তেজস্ক্রিয়তা ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে। ইসরাইলি সেনাবাহিনী পরে এ খবরের সত্যতা অস্বীকার করেছে। এ ছাড়া তাদের মুখপাত্রের পেইজ কী ভাবে হ্যাক করা হলো তা নিয়ে তদন্ত করছে।

হামাসের সামরিক শাখা ইজ্জাদ্দিন আল-কাসসাম বিগ্রেডে গত মাসের ১৬ তারিখে ইসরাইলি মোবাইল ফোনগুলোতে হিব্রুতে একটি বার্তা পাঠিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ফিলিস্তিনিরা দিমোনা থেকে হাইফা পর্যন্ত ইসরাইলের প্রতিটি অংশ দ্রুততার সঙ্গে আঘাত হানতে পারে এবং এতে ইসরাইলিরা আতংকে ইঁদুরের মতো দৌড়ে আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে ঢুকবে।

জেরুজালেমের উপকণ্ঠে অবস্থিত বেনিয়ামিনের ইসরাইল আঞ্চলিক পরিষদ জানিয়েছে, ইসরাইলিদের মোবাইল ফোনগুলো হ্যাক করা হয়েছে এবং ফোনের ঠিকানা হাতিয়ে নিয়ে এ জাতীয় বার্তা ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

গত মাসের ১৪ তারিখে চ্যানেল ১০-এর নিয়মিত অনুষ্ঠানমালার স্থানে হঠাৎ করে প্রচারিত হয়েছে হিব্রুবার্তা। এ বার্তায় বলা হয়েছে, সেনাবাহিনী থেকে সন্তানদের ঘরে ফিরিয়ে আনার আহ্বান জানানো হয়েছে ইসরাইলি মায়েদের প্রতি। তানা হলে তারা ধরা বা মারা পড়বে। এ বার্তা কে, কিভাবে দিয়েছে তা বোধহয় আর বলার অপেক্ষা রাখে না। এ ছাড়া, এ বার্তা ইসরাইলিদের কতোটা আতংকিত করেছে তাও অনুমানের অপেক্ষা রাখে না। 

এ ছাড়া, সার্ভারে হামলা করে  ইহুদিবাদী ইসরাইলের নেটভিশন লি এবং বেজেক ইন্টারন্যাশনাল লি.-এর মতো ইন্টারনেট সেবাদানকারী সংস্থাগুলোর ইন্টারনেটের গতি কমিয়ে দিয়েছে হামাস।
সুত্র : রেডিও তেহরান
Disclaimer:
This post might be introduced by another website. If this replication violates copyright policy in any way without attribution of its original copyright owner, please make a complain immediately to this site admin through Contact.

আরো ৩ ইসরাইলি সেনা নিহত, হামাস বলছে- ২০ জন


অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরাইলের পাশবিক হামলার ২৩তম দিনে বুধবার আরো তিন ইহুদিবাদী সেনা নিহত ও ২৭ সেনা আহত হয়েছে। ইসরাইলি সেনাবাহিনী বুধবার রাতে এসব হতাহতের খবর স্বীকার করেছে।

তবে হামাস বলেছে, তাদের হামলায় অন্তত ২০ ইসরাইলি সেনা নিহত হয়েছে।

ইহুদিবাদী বাহিনীর নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, “আজ (বুধবার) গাজা উপত্যকার ভেতরে তিন সৈন্য নিহত হয়েছে।” এ ছাড়া, ইসরাইলি সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, একটি ফিলিস্তিনি বাড়ির ভেতর ‘টানেল’ খুঁজতে গিয়ে ওই তিন সেনা নিহত হয়। বাড়িটিতে হামাসের ফাঁদ পাতা ছিল এবং ইসরাইলি সেনারা বাড়িটিতে ঢোকার পরপরই দু’টি বিস্ফোরণে তারা মারা যায়।

তবে নিজের সেনাদের মারাত্মক এ ক্ষয়ক্ষতির খবর প্রচারে রাখঢাক করতে গিয়ে পরস্পরবিরোধী খবর দিয়েছে তেল আবিব। ইসরাইলের গণমাধ্যম জানিয়েছে, একটি বাড়ির দেয়াল চাপা পড়ে তিন ইসরাইলি সেনা নিহত ও ১৫ জন আহত হয়েছে। বাকি ১২ সেনা গাজার বিভিন্ন এলাকায় আহত হয়েছে।

হামাসের সামরিক শাখা ইজ্জাদ্দিন আল-কাসসাম ব্রিগেড জানিয়েছে, দখলদার সেনারা গাজার খান ইউনিস শহরের একটি বাড়িতে হামলা চালাতে গেল তাদের পাল্টা হামলায় অন্তত ২০ ইহুদিবাদী সেনা নিহত হয়েছে। ব্রিগেডের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, খান ইউনিসের যে বাড়িতে বুধবার ইসরাইলি সেনারা প্রবেশ করে সেখানে ১২ ব্যারেল বিস্ফোরক পাতানো ছিল। দখলদাররা ঢোকামাত্র ভয়াবহ বিস্ফোরণে বাড়িটি কেঁপে ওঠে। ফলে বাড়িটিতে প্রবেশকারী একজন ইসরাইলি সেনাও জীবিত বের হতে পারে নি।

এ নিয়ে ইসরাইলের হিসাব অনুযায়ী, গাজায় আগ্রাসন চালাতে গিয়ে তাদের ৫৬ সেনা নিহত হলো। এছাড়া, হামাসের রকেট হামলায় নিহত হয়েছে আরো তিন ইহুদিবাদী বেসামরিক নাগরিক। অন্যদিকে হামাস বলেছে, তারা অন্তত ১৩০ ইসরাইলি সেনাকে জাহান্নামে পাঠিয়েছে। ইহুদিবাদী ইসরাইলের ইতিহাসে ২০০৬ সালে হিজবুল্লাহর বিরুদ্ধে ৩৩ দিনের যুদ্ধ ছাড়া এত বেশি সংখ্যক সেনা আর নিহত হয় নি।
সুত্র : রেডিও তেহরান
Disclaimer:
This post might be introduced by another website. If this replication violates copyright policy in any way without attribution of its original copyright owner, please make a complain immediately to this site admin through Contact.

সারা দেশে দুর্ঘটনায় আরো ২৭ জনের মৃত্যু

ঈদের অতিরিক্ত আনন্দ কখনো কখনো করুণ  পরিণতি ডেকে আনতে পারে। ঠিক তাই হয়েছে ঠাকুরগাঁওয়ের একদল পিকনিক যাত্রীর। যেমনটি ঘটেছে কুষ্টিয়ার আনন্দভ্রমণে বের হওয়া শিশু-কিশোরদের ভাগ্যে।    

ঈদের দিন নৌকায় চেপে পদ্মা নদীতে  আনন্দভ্রমণে বের হয়েছিল ২২ জন শিশু-কিশোর। বেলা তিনটার দিকে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার বৈরাগীর চরে নৌকাটি ডুবে যায়। মাঝিসহ সাত থেকে আটজন তীরে উঠতে পারলেও অন্তত ১৫ যাত্রী এখনো নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে।

ওদিকে ঈদের দিন রাতে পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার পানবাড়া গ্রাম থেকে একটি পিকআপ নিয়ে ৩০ জন যাত্রী পিকনিকের উদ্দেশ্যে  দিনাজপুরের বিনোদন স্পট  ‘স্বপ্নপুরী’তে   যাচ্ছিল।

দিনাজপুর যাওয়ার পর গাড়ির যান্ত্রিক  সমস্যা দেখা দেয়। ফলে  স্বপ্নপুরী না গিয়ে তারা ফিরে আসতে থাকে। এ অবস্থায় আজ ভোর চারটা’র দিকে  ঠাকুরগাঁও-ঢাকা মহাসড়কে কুমিল্লাহাড়ি নামক স্থানে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা একটি নৈশকোচ পিকআপটিকে পিছন থেকে আঘাত করে।   দুর্ঘটনায় পিকআপটি দুমড়ে মুচড়ে যায় এবং  পিকআপ যাত্রীদের  দু’জনের মৃত্যু ঘটে। এ ছাড়া অন্তত ২৫জন আহত হয়েছেন। আহতদের ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুতর আহত ৪জনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে  আজ সারা দেশে  সড়ক দুর্ঘটনায়  অন্তত: ১২ জনের  মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে । এ সব ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৫৮ জন। এর মধ্যে সিলেটে ৪, সিরাজগঞ্জে ৩ জন, ঠাকুরগাঁওয়ে ২জন , ভোলায় ১জন, নওগাঁয় ১জন ও বরিশালে ১জনের  মৃত্যু হয়েছে । 

বুধবার ভোরে  নূর আনন্দ পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ঢাকা থেকে সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে যাওয়ার পথে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে দক্ষিণ সুরমার অতিরবাড়ি এলাকায় চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে বাসটি রাস্তার পাশে খাদে পড়ে দুর্ঘটনায়  ৪ জন নিহত এবং ২০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

সিরাজগঞ্জ সদর ও উল্লাপাড়া উপজেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত ও আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৫ জন। বুধবার সকাল ১১টা ও দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বুধবার দুপুর ১২টার দিকে নওগাঁর মান্দা উপজেলার সতিহাট এলাকায় যাত্রীবাহী একটি ভটভটি উল্টে বামনি (৪০) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন আরো তিনজন।

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় অমিও মণ্ডল (৮০) নামে আহত এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে।

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার কর্তারহাট এলাকায় বাস দুর্ঘটনায় বেল্লাল (৩৪) নামে আহত এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার ঈদের দিন নোয়াখালী, নারায়ণগঞ্জ, ফরিদপুর, ভোলা ও মাগুরায় পৃথক দুর্ঘটনায় ২১ জন মারা যান।
সুত্র : রেডিও তেহরান

Disclaimer:
This post might be introduced by another website. If this replication violates copyright policy in any way without attribution of its original copyright owner, please make a complain immediately to this site admin through Contact.

মঈন আলীকে 'সেভ গাজা' ও 'ফ্রি প্যালেস্টাইন' ব্যান্ড পরতে দিল না আইসিসি

‘ফ্রি প্যালেস্টাইন’ ও ‘সেভ গাজা’ ব্যান্ড হাতে ইংলিশ ক্রিকেটার মঈন আলী
অবরুদ্ধ গাজার উপত্যকার ওপর ইসরাইলি পাশবিকতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানোর জন্য হাতে ‘ফ্রি প্যালেস্টাইন’ ও ‘সেভ গাজা’ ব্যান্ড পরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ খেলতে চেয়েছিলেন ইংলিশ ক্রিকেটার মঈন আলী। কিন্তু  আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল- আইসিসি তার এ শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

২৭ বছর বয়সি পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত এ খেলোয়াড়কে আইসিসি সাফ জানিয়ে দিয়েছে, ইংল্যান্ডের পক্ষে খেলার সময় এ ব্যান্ড পরা যাবে না। আইসিসি’র একজন মুখপাত্র বলেছেন, “যেসব পোশাক বা বার্তায় রাজনৈতিক, ধর্মীয় অথবা বর্ণবাদী তৎপরতা প্রকাশ পায় তা আন্তর্জাতিক খেলায় ব্যবহার নিষিদ্ধ।”

মঈন আলী হাতে এসব ব্যান্ড পরার পাশাপাশি অবরুদ্ধ গাজাবাসীর জন্য তহবিল সংগ্রহ করছেন বলেও খবর পাওয়া গেছে। আইসিসির এ নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কে তার কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি।
সুত্র : রেডিও তেহরান

Disclaimer:
This post might be introduced by another website. If this replication violates copyright policy in any way without attribution of its original copyright owner, please make a complain immediately to this site admin through Contact.

ফিলিস্তিনের অলৌকিক শিশুটি শেষ পর্যন্ত মারা গেছে......

জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে শিশু শায়মা (ফাইল ছবি)
বিশ্বের শান্তিকামী কোটি কোটি মানুষের প্রার্থনাকে ব্যর্থ করে দিয়ে  ফিলিস্তিনের অলৌকিক শিশুটি শেষ পর্যন্ত মারা গেছে। গত রোববার অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার কেন্দ্রস্থলে দেইর আল-বালাহ্‌ শহরে ইহুদিবাদী ইসরাইলের বিমান হামলায় মর্মান্তিকভাবে প্রাণ হারান আট মাসের গর্ভবতী মা শায়মা আস –শেখ কানান (২৮)। এ অবস্থায় দ্রুত জরুরি সিজারিয়ান অপারেশন করে তার গর্ভস্থ মেয়ে শিশুটির জীবন রক্ষা করেন চিকিৎসকদের দল। এ কথা  জানিয়েছিলেন গাজার জরুরি বিভাগের মুখপাত্র আশরাফ আল-কুদরা।

শহীদ মায়ের নামে এ মেয়ের নাম রাখা হয়েছিল শায়মা। অপরিপক্ব শিশু শায়মাকে বাঁচিয়ে রাখার যথাসাধ্য চেষ্টা করেন ইহুদিবাদী আগ্রাসনে সব অবকাঠামো নাস্তানাবুদ হয়ে যাওয়া জনপদ, অবরুদ্ধ গাজার সাহসী চিকিৎসকরা। অপরিপক্ব শিশুকে স্বাভাবিক পরিস্থিতিতেই বাঁচিয়ে রাখতে ব্যাপক আয়োজনের দরকার পড়ে। ইহুদিবাদী আগ্রাসনে অবকাঠামো ধ্বংসপ্রাপ্ত গাজায় সে ধরণের সহায়তা কতোটা জুটেছিল শায়মার বরাতে তা সহজেই অনুমান করা যায়। কিন্তু তারপরও হাল ছাড়েন নি চিকিৎসকদের দল।  কিন্তু তিন দিনের মাথায়  গতকাল মঙ্গলবার শেষ পর্যন্ত চিকিৎসকদের সব প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়ে মায়ের কাছে চলে যায় শায়মা।

হামাসের সাহসী যোদ্ধাদের সঙ্গে পেরে উঠতে না পারলেও গাজাকে এক মৃত্যুপুরীতে পরিণত করেছে আমেরিকাসহ পশ্চিমা ও কতিপয় আরব দেশের সমর্থনে বেড়ে ওঠা দানব ইহুদিবাদী ইসরাইল। অত্যাধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত ইহুদিবাদী ইসরাইল গাজার নিরপরাধ নারী ও শিশুদের ওপর নির্বিচার হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। যুদ্ধে সুবিধা করতে না পেরে নিরীহ ফিলিস্তিনিদের রক্তে হোলি খেলায় মেতে উঠেছে মানবতার শত্রু ইসরাইল।

গত ৮ জুলাই থেকে শুরু হওয়া ইহুদিবাদী আগ্রাসনের এ পর্যন্ত ১,২৬২ ফিলিস্তিনি নিহত এবং হাজার হাজার জন আহত হয়েছেন। হতাহতের সংখ্যা বাড়ছে প্রতিদিন। হতাহতদের এ তালিকার শীর্ষে রয়েছে হতভাগ্য ফিলিস্তিনি শিশুদের দল।

অবশ্য তিন সপ্তাহের এ আগ্রাসনে চড়া মূল্য দিতে হয়েছে ইসরাইলি বাহিনীকে। আবাল-বৃদ্ধ-বণিতাসহ নিরীহ ফিলিস্তিনি মানুষ মারছে ইসরাইল। ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা কেবল বেছে বেছে ইহুদিবাদী পশু সেনাদের হত্যা করছে। ফিলিস্তিনি যোদ্ধাদের হামলায়  এ পর্যন্ত ৫৩ জন সেনা নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে তেল আবিব।  

কিন্তু  ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস বলছে, প্রকৃতপক্ষে নিহত হয়েছে অন্তত ১১০ ইহুদিবাদী সেনা। ইসরাইলের আগ্রাসন বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত ইহুদিবাদী সেনা হত্যার এ অসাধারণ রণকৌশল, এ অঙ্গীকারবদ্ধ অভিযান, কালজয়ী এ বীরত্বগাঁথা অব্যাহত থাকবে বলে হামাসের অকুতোভয় যোদ্ধারা ঘোষণা করেছেন।
সুত্র : রেডিও তেহরান

Disclaimer:
This post might be introduced by another website. If this replication violates copyright policy in any way without attribution of its original copyright owner, please make a complain immediately to this site admin through Contact.

ইসরাইলকে ১৭ বার বলেছি, স্কুলটিতে শরণার্থীরা থাকে: জাতিসংঘ

ইসরাইলি সেনাদের হামলা থেকে প্রাণে বেঁচে যাওয়া একটি ফিলিস্তিনি পরিবার
জাতিসংঘ বলেছে, ইসরাইলকে বহুবার হুঁশিয়ার করে দেয়া সত্ত্বেও তারা গাজা উপত্যকার জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরের একটি স্কুলে হামলা চালিয়েছে। জাতিসংঘের মুখপাত্র ক্রিস গানেস আজ (বুধবার) বলেছেন, “গোটা বিশ্ব এ হামলায় ক্ষুব্ধ হয়েছে।”

আজ ভোরে ফজরের নামাজের সময় জাবালিয়ায় জাতিসংঘ পরিচালিত স্কুলের ঘুমন্ত শিশুদের ওপর ইহুদিবাদী সেনাদের পাশবিক হামলায় অন্তত ২০ জন নিহত হয়।

গানেস বলেন, জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরের এই স্কুলটিতে যে শরণার্থীরা আশ্রয় নিয়েছে তা ইসরাইলকে ১৭ বার জানানো হয়েছে। আজ সকালে পাশবিক হামলাটি চালানোর কিছুক্ষণ আগে বিষয়টি সর্বশেষ ইসরাইলকে জানানো হয়। ইসরাইলি কামানের গোলা স্কুলটিতে আঘাত হেনেছে বলে জাতিসংঘের এ মুখপাত্র জানান।

জাতিসংঘের শরণার্থী ও ত্রাণ বিষয়ক সংস্থা ইউএনআরডাব্লিউএ’র গাজা পরিচালক বব টার্নার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেছেন, জাবালিয়ার স্কুলে হামলার জন্য ইসরাইল দায়ী।

এর আগে গাজার অন্য একটি স্কুলে চালানো হামলা অস্বীকার করে তেল আবিব দাবি করেছিল, হামাসের নিক্ষিপ্ত রকেট লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে স্কুলে পড়েছে। টার্নার বলেন, জাতিসংঘের কর্মীরা ঘটনাস্থল থেকে যে নমুনা সংগ্রহ করেছেন তাতে বোঝা যায়, স্কুলটির উত্তর-পূর্বে মোতায়েন ইসরাইলি সেনারা সেখানে কামানের গোলা নিক্ষেপ করেছে। বর্বর ইহুদিবাদী সেনারা যথারীতি বলেছে, তারা ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে।
সুত্র : রেডিও তেহরান

Disclaimer:
This post might be introduced by another website. If this replication violates copyright policy in any way without attribution of its original copyright owner, please make a complain immediately to this site admin through Contact.

বাংলাদেশ


এ বিষয়ের সব সংবাদ

এশিয়া


এ বিষয়ের সব সংবাদ

মধ্যপ্রাচ্য


এ বিষয়ের সব সংবাদ

আমেরিকা


এ বিষয়ের সব সংবাদ

ইউরোপ


এ বিষয়ের সব সংবাদ

আফ্রিকা


এ বিষয়ের সব সংবাদ

খেলাধুলা


এ বিষয়ের সব সংবাদ

বিনোদন


এ বিষয়ের সব সংবাদ

ভিন্ন রকম


এ বিষয়ের সব সংবাদ

প্রযুক্তি


এ বিষয়ের সব সংবাদ

অর্থনীতি


এ বিষয়ের সব সংবাদ

শিল্প ও সাহিত্য


এ বিষয়ের সব সংবাদ